সারাদেশে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র আশুরা পালিত

Digiqole ad


জাতীয় : যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর পরিবেশে আজ রোববার রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে পবিত্র আশুরা পালিত হয়েছে।
কারবালার শোকাবহ ঘটনাবহুল এ দিনটি মুসলমানদের কাছে ধর্মীয়ভাবে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। ত্যাগ ও শোকের প্রতীকের পাশাপাশি বিশেষ পবিত্র দিবস হিসেবে দিনটি পালন করা হয় মুসলিম বিশ্বে।
যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদা ও সংক্ষিপ্ত কর্মসূচিতে এ বছর স্বাস্থ্যবিধি মেনে পবিত্র আশুরা পালিত হয়।
এ উপলক্ষে আজ সরকারি ছুটির দিন।পবিত্র আশুরা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।
হিজরি ৬১ সনের ১০ মহররম এই দিনে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র হযরত ইমাম হোসেইন (রা.) এবং তাঁর পরিবার ও অনুসারীরা সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে যুদ্ধ করতে গিয়ে ফোরাত নদীর তীরে কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে শহীদ হন।
এ ঘটনা স্মরণ করে বিশ্ব মুসলিম যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনটি পালন করে থাকে। শান্তি ও সম্প্রীতির ধর্ম ইসলামের মহান আদর্শকে সমুন্নত রাখতে তাদের এই আত্মত্যাগ মানবতার ইতিহাসে সমুজ্জ্বল হয়ে রয়েছে। কারবালার এই শোকাবহ ঘটনা ও পবিত্র আশুরার শাশ্বত বাণী সকলকে অন্যায় ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে এবং সত্য ও সুন্দরের পথে চলতে প্রেরণা যোগায়।
বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতিতে এ উপলক্ষে রাজধানী ঢাকাসহ দেশব্যাপী সংক্ষিপ্ত কর্মসূচি পালিত হয়। এ উপলক্ষে পুুলিশ রাজধানীতে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে।
করোণা মহামারীর কারণে ছোট পরিসরে হয়েছে আশুরার তাজিয়া মিছিল। হোসেনি দালান ইমাম বাড়া ব্যবস্থাপনা কমিটির আয়োজনে সকাল দশটায় বের হয় মহররমের এই শোকের মিছিল। তবে সে মিছিল হোসেনি দালান ইমাম বাড়া প্রাঙ্গণেই সীমাবদ্ধ ছিল।

Digiqole ad

Related post